নৃ- কল্প; ১৩ মার্চ সংখ্যা; বর্ষ-৬, সংখ্যা-২৩

IMG_20180315_004339

আমাদের কথা

নৃ-নাট্য মানে শুধু একটা নাটকের সংগঠন নয়। শুধুমাত্র মননশীলতা ও উদ্ভাবনী শক্তির বিকাশ নয়; ‘নৃ’ ধারণার মূল লক্ষ্য সমাজ, মনুষ্যত্ব ও মানবিকতা, এবং জীবনের বাস্তব সত্যগুলোর প্রতি আন্তরিক দায়বদ্ধতার সৃষ্টি। ‘নৃ’ ধারণা নিয়ে পুনঃআলোচনা আবশ্যক। ‘নৃ’ মানে মানুষ। আর এই মানুষকে ঘিরেই আবর্তিত হয় সভ্যতা। মনোদৈহিক- জাতিগত- স্বত্তাগত পার্থক্য মানবসম্প্রদায়ের বৈশিষ্ট্য। কিন্তু পৃথিবীর সর্বত্রই বঞ্চিতের চেহারা এক। আর তাই মানুষের মাঝে সমতা আনার জন্য প্রয়োজন চিন্তার ঐক্য। মানুষের মধ্যে দৃশ্যত যত পার্থক্যই থাকুকনা কেন; করোটির অভ্যন্তরের, অর্থাৎ চিন্তার উৎসস্থলের সমতাই নিশ্চিত করতে পারে প্রায়োগিক সাম্যবাদ। চিন্তার উৎসস্থলের সমতা দিয়ে বৈষম্য প্রতিরোধের চর্চাকেই আমরা বলে থাকি ‘করোটির সাম্যবাদ’।
২০০৪ সালের ১৩ মার্চ কটকা সমুদ্র সৈকতে হারিয়ে যান এগারো জন উজ্জ্বল নক্ষত্র। নৃ- নাট্য হারায় তার প্রতিষ্ঠাতা সংগঠক তৌহিদ এনাম অপু কে।

 

মোঃ মাকসুমুল মোস্তাজী নিপুনের কবিতা

[ মোঃ মাকসুমুল মোস্তাজী নিপুন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপত্য বিভাগের ছাত্র ছিলেন। ২০০৪ সালের ১৩ মার্চ কটকা সমুদ্র সৈকতে এই প্রতিভাবান কবি এবং স্থপতি হারিয়ে যান। সংকলনের অভাবে হারিয়ে যেতে বসেছে তার কবিতাগুলো। ]

মহামান্য মানবতা
পৃথিবীতে মানুষগুলো ধীরে ধীরে একেকটা শ্বাপদ হয়ে উঠেছে
বিশ্বাস করুন মহামান্য মানবতা,
পৃথিবীতে মানুষগুলো ধীরে ধীরে একেকটা শ্বাপদ হয়ে উঠেছে
পৃথিবীতে জন্ম নিয়েই তারা ছুটছে-ছুটছে,
সকল মানুষের মাঝে বিন্দুরুপে জন্ম নিচ্ছে এক শ্বাপদ,
কর্কট বীজানুর ন্যায় বিছিয়ে দিচ্ছে তার রাজত্ব,
মানুষের ভবিষ্যত প্রতিটি কর্মে প্রতিটি কর্তব্যে।
মহামান্য মানবতা,
মানুষ নামের জীবগুলো পৃথিবীতে এসে,
এই শ্বাপদের দাসত্ব করে, জন্ম জন্মান্তরে
সন্তান জন্মদানের ধারাকে তারা ধরে রেখে
যেন এই শ্বাপদের অমরত্বকেই প্রভাবিত করে।।
মহামান্য মানবতা,
এ মৃত্যুহীন শ্বাপদের প্রভাবে
বিষদন্ত, শিং, লোমশ শরীর ছাড়াই
মানুষ নামের জীবগুলো আজ শ্বাপদ হয়ে উঠেছে।।
আশা, আশা, আশা,
আশা নামের শ্বাপদটি প্রতিটি মানবের মাঝে
বপেছে শ্বাপদের বিষবৃক্ষ-লতা,
আশা নামের শ্বাপদটিই ব্যস্ত করেছে আমাদের।
আশার স্বাভাবিক মৃত্যু নেই
জন্ম-জন্মান্তরে পূর্ব হতে পর পুরুষে
প্রতিটি মানুষের স্বপ্ন ঔরষে প্রতিপলে
জন্ম নিচ্ছে আশা,আশার বিষাক্ত শ্বাপদ।।
মৃত্যু ঘটেছে মানবতার।।
মানবতা আজ বদলে গেছে “লাফিং স্টকে”
আশার শ্বাপদ লেলিয়েছে মানুষের যুদ্ধ ও খুনে
আজ তাই চুম্বন,প্রেম আর ভালবাসার কারফিউ
হত্যা আর হিংসার আনন্দ মিছিল আজ বিশ্বজুড়ে।।
মানুষ নাকি আজকাল ভালবেসে যুদ্ধ করে,
এর চেয়ে হাস্যকর আর কি হতে পারে।
মহামান্য মানবতা।
আমি প্রতিটি মানুষের প্রতি ফোটা রক্তের হিসাব চাই।
হোক সে মুক্তিযোদ্ধা,রাজাকার,বিপ্লবী কিংবা নাৎসী,
হোক সে ইহুদী,ফিলিস্তিনি কিংবা অসহায় সোমালিয়ান।
মহামান্য মানবতা।
আমি প্রতিটি মায়ের প্রতি ফোটা রক্তের জবাব চাই
হতে পারে সে মাতা হাভাতে,হতে পারে সন্তানহারা।
হতে পারে সে মাতা কৌমার্যলুন্ঠিত নির্মম নির্যাতিতা।
মহামান্য মানবতা
আমি প্রতিটি বোনের প্রতিটি আর্তনাদের বিচার চাই।
বিচার চাই,পশুত্বের নখরে ক্ষতবিক্ষত প্রতিটি বুকের ক্ষতের,
বিচার চাই প্রতিটি হিংস্র থাবার নৃশংস নিহত প্রতিটি নারীত্বের।।
আর যদি বিচার না পাই, মহামান্য মানবতা
স্রষ্টার আসন কেঁপে উঠবে আমার অভিশাপে।।
প্রতিটি মায়ের গর্ভজাত প্রতি ফোঁটা রক্তের কসম,
মহামান্য মানবতা,আজ যদি আমি বিচার না পাই
আপনি সময়ের আদালতে বেজন্মা জারজ প্রমানিত হবেন।।

তৌহিদ এনামের কবিতা
[ তৌহিদ এনাম অপু খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপত্য বিভাগের ছাত্র ছিলেন, ২০০৪ এর কটকা ট্রাজেডিতে তিনি হারিয়ে যান। প্রতিভাবান এই কবি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্য সংগঠন নৃ- নাট্যের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং সাহিত্যের ছোটকাগজ ‘দ’ এর অন্যতম সংগঠক। তৌহিদ এনাম অপুর ‘চোখ’ কবিতাটি তার রচনাসংকলন ‘সমগ্র তৌহিদ এনাম’ থেকে পুনমুদ্রিত]

           চোখ
মানুষের ডানা নেই তাই
পাখিদের চোখ দিয়ে নীলাকাশ দেখে
সেই চোখে সবুজের ছোঁয়া আছে।
আছে প্রিজমের কোণ
প্রতিসরণের তরে
এই বোধে চেয়ে দেখি একজোড়া সাদা চোখ
স্ফটিক ছলনায় শুষে নেয় সূর্যালোক
সাত রঙে সাদা চোখ
মাছেদের মতো তড়পায়।
অন্ধরা ভালো আছে নিরালায়
শুধু মাঝে মাঝে
শ্বেত পাথরে জেগে ওঠা সবুজ শ্যাওলা খোঁজে।

 

 

 

 

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s